বৃহস্পতিবার, ১৮ অগাস্ট ২০২২, ১০:০৭ অপরাহ্ন
দৈনিক দেশ প্রতিদিন

দৈনিক দেশ প্রতিদিন

 

আমতলীতে কবরস্হান কেটে জমি দখলের অভিযোগ–মামলার প্রস্তুতি চলছে

  • প্রকাশের সময় : সোমবার, ২০ জুন, ২০২২
  • ১২২ বার দেখেছে
এস এম নাসির মাহমুদ বরগুনা জেলা প্রতিনিধি আমতলীতে কবর স্হান কেটে জমি দখলের অভিযোগ পাওয়া গেছে। আমতলী পৌরসভার ৮ নং ওয়ার্ডের নয়াভাংঙ্গলি গ্রামের আদম আলী গাজীর ছেলে ইব্রাহিম গাজী (২২) ও কেতাব আলী গাজীর ছেলে আদম আলী গাজী( ৫২) বিরুদ্ধে জমি দখলের অভিযোগ পাওয়া গেছে স্থানীয় ও মামলার অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, মো, শাহ আলম হাওলাদার ও আদম আলী গংদের মাঝে দীর্ঘ দিন জমি জমা নিয়ে বিরোধ চলে আসছে। আমতলী মৌজার ৮০৯ নং খতিয়ানের ১২৮০ নং দাগ শাহ আলম হাওলাদার গংদের রেকর্ডীয় জমি। বাপ দাদার আমল হতে ভোগ দখল করে আসছে। এ জমিতে দাদা মোন্তাজ হাওলাদার ও তার বাবা পরান হাওলাদারের কবর স্হান রয়েছে। পুরানা বাড়ি ভিটায় প্রতি বছর নতুন মাটি দ্বারা কবর স্হান ভরাট করে আসছে।। ১৮ জুন শনিবার দিবাগত রাতে মো, ইব্রাহিম গাজী ও তার বাবা আদম আলী গাজী গংরা পরান হাওলাদারের কবর স্হান কেটে রাতের আধারেই কবর স্হান চাষ করে ধানের বীজ রোপন করেন সকালে শাহ আলম হাওলদার ও স্হানীয় গন্য মান্য নিজাম গাজী, দুলাল বয়াতি,মনিরুল ইসলাম,দুলাল গাজী ঘটনাস্থলে আসলে আদম গাজী ও ইব্রাহিম গাজী গং তাদের গাল মন্দ সহ দেশীয় অস্ত্র নিয়ে জীবন নাশের হমকি দেয়। অনুপায় হয়ে শাহআলন হাওলাদার প্রশাসন কাছে সহযোগিতা কামনা করছেন। সূএে জানা যায়, ইব্রাহীম গাজী ও আদম আলী গাজীর বিরুদ্ধে গ্রামের বিভিন্ন কুকর্মের অভিযোগ রয়েছে গত ৩১ শে মে একই গ্রামের মো,ফোরকান মীরার একটি বাচ্চুর গরু পিটিয়ে মেরে ফেলে, ফোরকান মীরা থানায় অভিযোগ দিলে পচিশ হাজার টাকা জরিমানা দিতে হয়। । কবর কেটে জমি দখলের ঘটনায় গ্রামের সাধারন মানুষের মাঝে ক্ষোভ বিরাজ করছে। আমতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার কাছে জানতে চাইলে,তিনি বলেন ঘটনাটি শুনেছি , লিখিত অভিযোগ পাইনি, লিখিত অভিযোগ পাইলে আইনুগ বব্যস্হা নেয়া হবে। এ রির্পোট লেখা পর্যন্ত মামলা হয়নি মামলার প্রস্তুতি চলছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই রকম আরো সংবাদ
দৈনিক দেশ টিভি

দেশ প্রতিদিন টিভি

নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি

দৈনিক দেশ প্রতিদিন

দৈনিক দেশ প্রতিদিন

দৈনিক দেশ প্রতিদিন

দৈনিক দেশ প্রতিদিন

দৈনিক দেশ প্রতিদিন

দৈনিক দেশ প্রতিদিন

দৈনিক দেশ প্রতিদিন

দৈনিক দেশ প্রতিদিন